ইয়াওমুল আহাদ (রবিবার), ২৯ নভেম্বর ২০২০

ভারতে শুধু অক্টোবরে কর্মহীন ১৮ লাখ কর্মী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে গত অক্টোবরেই কর্মী কমেছে ১৮ লাখ। মে মাসের পর কর্মী ও সংস্থার সংখ্যায় এত বিপুল পতন হয়নি। অর্থাৎ লকডাউন বিপর্যয় কাটিয়ে ছোট ও মাঝারি সংস্থাগুলোর হাল ফিরছে বলে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের করা দাবি কার্যত মুখ থুবড়ে পড়ল নতুন এই পরিসংখ্যানে।

অথচ দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন দাবি করছে, করোনার ধাক্কা সামলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে অর্থনীতি। কিন্তু কর্মসংস্থানের এমন চিত্র উঠে আঠায় তার এমন দাবি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সরকারি হিসাবে গত সেপ্টেম্বরের তুলনায় অক্টোবরে এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড অফিসে (ইপিএফও) নথিবদ্ধ সংস্থা কমেছে ৩০ হাজার।
বেসরকারি সংস্থার কর্মীদের প্রভিডেন্ট ফান্ড ও পেনশন খাতে বেতনের ১২ শতাংশ কেটে নেয়া হয়। সমপরিমাণ টাকা সংস্থাও জমা দেয়। এই দুই অংশের টাকা মিলিয়ে জমা থাকে ইপিএফও-তে।

সেপ্টেম্বরে ইপিএফও-তে টাকা জমা পড়া কর্মীর সংখ্যা ছিল ৪ কোটি ৭৬ লাখ ৮০ হাজার। অক্টোবরে তা প্রায় ১৮ লাখ কমে হয়েছে ৪ কোটি ৫৮ লক্ষ ২০ হাজার। এ ছাড়া এই সময়ে নথিবদ্ধ সংস্থা ছিল ৫ লাখ ৩৪ হাজার ৮৬৯টি। অক্টোবরে তা কমে হয়েছে ৫ লাখ ৪ হাজার ৪৪। অর্থাৎ সংস্থার সংখ্যা কমেে ার ৮০০।
করোনার আগে থেকে ভারতের কর্মসংস্থানের চিত্রে অশনি সঙ্কেত ছিল। গত বছরের মে মাসে ৪৫ বছরে বেকারত্বের হার ছিল সর্বোচ্চ। করোনার তান্ডবে তা আরও ভয়াবহ হয়।

Facebook Comments