ইয়াওমুল আহাদ (রবিবার), ২৯ নভেম্বর ২০২০

বিচি ছাড়া বরই চাষ করে লাখপতি হওয়ার স্বপ্ন নাছিরের

বিচি ছাড়া বরই চাষ করে লাখপতি হওয়ার স্বপ্ন নাছিরের

মাগুরা সংবাদদাতা: প্রথমবারের মতো মাগুরায় চাষ হয়েছে বিচি ছাড়া বরই। আকারে বেশ বড় এবং দেখতে অনেকটা আপেলের মতো হওয়ায়, ভোক্তার কাছে এই ফল বেশ জনপ্রিয়।

টক-মিষ্টি স্বাদের বিচি ছাড়া বরই চাষ ও এর চারা বিক্রি করে লাভের মুখ দেখবেন বলে আশা করছেন উদ্যোক্তা নাছির আহম্মেদ।

উদ্যোক্তা নাছির আহম্মেদের শুরুটা ৪ একর জমিতে ভারত থেকে আনা ২ হাজার বিচি ছাড়া বরইর চারা দিয়ে। চলতি বছর এপ্রিল মাসে লাগানো গাছে সেপ্টেম্বর মাসেই আসতে শুরু করেছে ফুল।

আগামি ২ মাসের মধ্যে বিচি ছাড়া বরই বিক্রি করা যাবে বলে ধারণা মাগুরার কৃষি উদ্যোক্তা নাসির আহম্মেদের।

বিচি ছাড়া টকমিষ্টি এই বরই আকারে বেশ বড় এবং দেখতে অনেকটা আপেলের মত হওয়ায়, অপার বাণিজ্যের সম্ভাবনা দেখছেন এই বরই চাষি।

তার এই বাগানে কর্মসংস্থান হয়েছে অনেকেরই। আবার স্থানীয় অনেকেই আগ্রহী নতুন করে বাগান তৈরিতে।

মাগুরা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সুশান্ত কুমার প্রামাণিক বলেন, এই এলাকার মাটি উপযোগী হওয়ায় নতুন জাতের এই কুল চাষ ও চারা উৎপাদন কৃষকদের জন্য নতুন সম্ভাবনা।

বাগানটিতে নাসির আহম্মেদের খরচ হয়েছে প্রায় ৪ লাখ টাকা। আর এ বছর ১৮ থেকে ২০ লাখ টাকার বরই বিক্রির আশা করছেন তিনি।

Facebook Comments