ইয়াওমুস ছুলাছা (মঙ্গলবার), ২০ অক্টোবর ২০২০

ডাঁটাশাকে লাভবান কৃষক

ডাঁটাশাকে লাভবান কৃষক

নিউজ ডেস্ক: অল্প টাকা খরচে ডাঁটাশাক চাষে লাভবান হওয়া সম্ভব। তার প্রমাণ দিলেন হবিগঞ্জের বাহুবলের কৃষকরা। তারা উপজেলার স্থানে স্থানে জমি প্রস্তুত করে ডাঁটাশাক চাষ করছেন। এতে আসছে সফলতা। এ উপজেলার চকগাঁও গ্রামের কৃষক আবদুল মালেক মাত্র ১৫ শতক জমিতে ডাঁটাশাক চাষ করেন। এতে খরচ হয় প্রায় ২ হাজার টাকা। এ জমিতে ডাঁটাশাকের বাম্পার ফলন হয়েছে। তিনি আশা করছেন ডাটা শাক বিক্রি করে কমপেক্ষ ২০ হাজার টাকা পাবেন।

আবদুল মালেকের মতো একইভাবে ডাঁটাশাক চাষ করেন উপজেলার ডুবাঐ এলাকার জাহির উদ্দিন, হিলালপুরের রহমত উল্লাহ, গোলগাঁওয়ের সাইফুল ইসলামসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় দেড়শতাধিক কৃষক। ডাটা শাক বিক্রি করে তারাও লাভবান হচ্ছেন বলে জানালেন ডুবাঐ কৃষি ব্লকের দায়িত্বে থাকা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা প্রণব মজুমদার। তিনি বলেন, বর্তমানে বাজারে সবজি ও শাক বিক্রি করে কৃষকরা লাভবান। তাই কৃষকরা এক জমিতে একাধিক শাক ও সবজি চাষ করছেন। তিনি বলেন, চকগাঁও গ্রামে কৃষক আবদুল মালেক ডাঁটাশাক চাষ করে ভালো ফলন পেয়েছেন। এ কৃষকের চাষাবাদে সফলতা দেখে এলাকার অন্য কৃষকরাও ডাঁটাশাক চাষে উৎসাহিত হয়েছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আবদুল আউয়াল বলেন, ডাঁটাশাক চাষে তেমন একটা খরচ হয় না। সহজেই ডাঁটাশাক চাষ করা যায়। ডাঁটাশাক চাষ করে সফলতার প্রমাণ পেলেন কৃষক আবদুল মালেক। তার মতো অনেক চাষিই ডাঁটাশাক চাষে সফলতা পাচ্ছেন। বর্তমানে ডাঁটাশাক চাষের উপযুক্ত সময়।

Facebook Comments