ইয়াওমুল ইসনাইন (সোমবার), ০৬ জুলাই ২০২০

কারফিউ উপেক্ষা করে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ: সহিংসতায় নিহত ৩, গুলিবিদ্ধ ৫ পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কারফিউ উপেক্ষা করেই কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদে ষষ্ঠ দিনের মত উত্তাল পুরো যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির অন্তত ৪০টি শহরে কারফিউ জারি করেও থামানো যাচ্ছে না বিক্ষোভ ও সংঘর্ষ। অ্যারিজোনা, টেক্সাস ও ভার্জিনিয়ায় জারি করা হয়েছে জরুরি অবস্থা।

দেশটির ১৫টি রাজ্য ও ওয়াশিংটন ডিসিতে মোতায়েন করা হয়েছে ন্যাশনাল গার্ডের ৫ হাজার সদস্য। ওদিকে জর্জ ফ্লয়েড হত্যা মামলায় তার পক্ষে আইনি লড়াইয়ের ঘোষণা দিয়েছে মিনেসোটার অ্যাটর্নি জেনারেল।

গতকাল আদালতে তোলার কথা রয়েছে ফ্লয়েড হত্যা মামলায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য ডেরেক চাউভিনকে। বিক্ষোভের সময় অসদাচরণের অভিযোগে আটলান্টার দুই পুলিশ সদস্যকে বরখাস্তও করা হয়েছে।

রোববার নিউইয়র্ক, ওয়াশিংটন, ফিলাডেলফিয়া ও মিয়ামিসহ অন্তত ৪০টি শহরে পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়েছে বিক্ষোভকারীদের। শুধু শিকাগোতেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্রায় ২ হাজার ৫০০ জনকে। আর বিক্ষোভের সময় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন অন্তন ৬ জন।

এদিকে জর্জ ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদে চলমান বিক্ষোভ ও সহিংসতা দমাতে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে সেনা মোতায়েনের হুঁশিয়ারি দিয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। বিভিন্ন রাজ্যের গভর্নরদের সতর্ক করে ট্রাম্প বলেছে, আইনের শাসন রক্ষায় স্থানীয় প্রশাসন ব্যর্থ হলে কঠোর এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবো।

Facebook Comments