ইয়াওমুল ইসনাইন (সোমবার), ১৩ জুলাই ২০২০

চড়া মুরগি-মসলার বাজার, অপরিবর্তিত সবজি

নিজস্ব প্রতিবেদক: সপ্তাহের ব্যবধানে এখনো চড়া রয়েছে মুরগির বাজার। মুরগিভেদে ৩০ থেকে ৫০ টাকা পর্যন্ত বাড়তি রয়েছে দাম। মুরগির সঙ্গে খুচরা বাজারে চড়া রয়েছে মসলার দামও। আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে মসলার বাজার স্থিতিশীল রাখতে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলোচনা করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় দাম নির্ধারণ করে দেয়। তবে পাইকারি বাজারে নির্ধারিত মূল্যে গরম মসলা বিক্রি হলেও খুচরায় এখনও চড়া রয়েছে।

সরকারিভাবে মসলার দাম নির্ধারণের কোনো প্রভাব দেখা যায়নি। এদিকে মুরগি-মসলার দাম বাড়লেও অপরিবর্তিত রয়েছে শাক-সবজি, মাছ, গরু গোশত ও ডিমের দাম। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর পল্টন, মতিঝিল, শান্তিনগর, মালিবাগ, খিলগাঁও এলাকায় কয়েকটি বাজার ঘুরে এসব চিত্র উঠে এসেছে।

সেলিনা নামে মালিবাগ কাঁচাবাজারের এক ক্রেতা বলেন, বর্তমানে সবজির দাম কমলেও বেড়েছে মসলার দাম। পেঁয়াজ-রসুনের দামও বাড়তি এখন। ঈদের আগে অসৎ ব্যবসায়ীরা দাম বাড়তি রাখেন। নতুন করে মুরগির দাম বাড়তি রয়েছে যা বর্তমান পরিবেশে কাম্য না।

মালিবাগ বাজারের বিক্রেতা আক্তার বলেন, মসলার দাম পাইকার বাজারে কিছুটা কমেছে বলে শুনেছি তবে আমরা আগের রেটে কেনা মাল বিক্রি করছি। নতুন মাল এখনও খুচরা বাজারে আসেনি, এলে দাম কমে আসবে। আর দাম কমলে তো সব জায়গাতেই কমবে, আমরাতো খুব বেশি লাভ করিনা।

বোরহান নামে এ বাজারের এক মুরগি বিক্রেতা বলেন, পাইকারি বাজারে এখন মালের সরবরাহ কম, চাহিদা বেশি থাকায় দাম বেড়েছে। পাইকারি বাজার থেকে আমার বেশি দামে এনে বাড়তি দামে বিক্রি করছি। ওখানে দাম কমলে খুচরায় দাম কমে যাবে।

Facebook Comments