ইয়াওমুল ইসনাইন (সোমবার), ২৫ মে ২০২০

পারস্য উপসাগরে চরম উত্তেজনা,যুক্তরাষ্ট্রের উসকানি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পারস্য উপসাগরে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে বলে জানা গেছে। সেখানে মার্কিন বাহিনী এই পরিস্থিতির জন্য দায়ী বলে দাবি করছে তেহরান। ইরানি গানবোট থেকে মার্কিন রণতরীকে সতর্ক করা হচ্ছে।

ইরানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পারস্য উপসাগরে মোতায়েন মার্কিন সন্ত্রাসী নৌবাহিনীর উসকানিমূলক তৎপরতার নিন্দা জানাতে তেহরানে নিযুক্ত সুইস রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভির বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা ইরনা এ সংবাদ জানিয়েছে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছে, পারস্য উপসাগরে মোতায়েন মার্কিন বাহিনীর হয়রানি ও উসকানিমূলক তৎপরতার প্রতিবাদ জানাতে বৃহস্পতিবার তেহরানে মার্কিন স্বার্থ রক্ষাকারী সুইস রাষ্ট্রদূতকে তলব করা হয়।

মুসাভি জানায়, পারস্য উপসাগরে ইরানের পানিসীমার কাছে মার্কিন নৌজাহাজের ‘অবৈধ ও গোলযোগপূর্ণ উপস্থিতি’র ব্যাপারে ইরানের ‘তীব্র প্রতিবাদ’ জানানো হয়।
এদিকে, ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি) জানিয়েছে, পারস্য উপসাগরে মার্কিন নৌবাহিনীর একাধিক রণতরী ‘অপেশাদার ও বিপজ্জনক’ আরচরণ করেছে। আইআরজিসি’র একটি রসদ সরবরাহকারী জাহাজের নিয়মিত টহলের সময় যুক্তরাষ্ট্রের রণতরীগুলো ওই আচরণ করে।

আইআরজিসি’র গানবোটগুলোর পক্ষ থেকে মার্কিন রণতরীকে সতর্ক করে দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হুমকি দিয়ে বলেছে, এরপর ইরানি সেনারা তার ভাষায় মার্কিন রণতরীর জন্য সমস্যা তৈরি করলে ইরানি গানবোটে গুলি চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রতিক্রিয়ায় আইআরজিসি’র প্রধান কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি বলেছে,পারস্য উপসাগরে মার্কিন রণতরী বিরক্ত করলে তাদের ওপর হামলা চালানো জন্য তার বাহিনীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

Facebook Comments