ইয়াওমুল খামিছ (বৃহস্পতিবার), ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

রাজশাহীর ৮৬% সরকারি অফিসে তামাক আইন লঙ্ঘিত

রাজশাহী সংবাদদাতা: রাজশাহী শহরের ৮৬ শতাংশ সরকারি অফিসে সরকারের ‘ধূমপান ও তামাকজাতদ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন-২০০৫ (সংশোধিত আইন-২০১৩)’ লঙ্ঘন করা হচ্ছে। এছাড়া ৮০ শতাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ৫১ শতাংশ স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে ও ৭৪ শতাংশ রেস্টুরেন্টে দেদারছে লঙ্ঘিত হচ্ছে এ আইন।

বৃহস্পতিবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলন এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়- গতবছর (জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৯) ‘এসিডি’র তত্ত্বাবধানে এবং ‘ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিডস-সিটিএফকে’র সহযোগিতায় ‘রাজশাহী শহরের পাবলিক প্লেসে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নের বর্তমান অবস্থা’ যাচাইয়ের জন্য ‘ক্রস সেকশনাল’ পদ্ধতিতে একটি বেসলাইন জরিপ পরিচালিত হয়। রাজশাহী শহরের মোট ৭০২টি পাবলিক প্লেসে (১৫৪টি সরকারি অফিস, ১০৫টি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র, ১২৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ৩১৬টি রেস্টুরেন্টে) পরিচালিত হয় এই জরিপ।

জরিপের ফলাফল অনুযায়ী শতাংশ সরকারি অফিসে ধূমপানের নিদর্শন পাওয়া গেছে, শতাংশ অফিসে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী সতর্কতামূলক নোটিশ পাওয়া যায়নি।

সরাসরি ধূমপান হচ্ছে ১৮ শতাংশ, সিগারেট/বিড়ির বাট ৭২ শতাংশ, ছাইদানি ৩ শতাংশ এবং ৪৩ শতাংশ সরকারি অফিসে সিগারেট/বিড়ির গন্ধ পাওয়া গেছে। আইন অনুযায়ী ৪৭ শতাংশ অফিসে সতর্কতামূলক নোটিশ পাওয়া যায়নি। এমনকি ৪০ শতাংশে কোনো ধরনের সতর্কতামূলক নোটিশও দেখা যায়নি। এছাড়া ৭০ শতাংশ অফিসের সীমানা থেকে ১০০ মিটারের মধ্যে তামাকজাত দ্রব্যের বিক্রয়কেন্দ্র পাওয়া গেছে বলেও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলন।

Facebook Comments