ইয়াওমুল খামিছ (বৃহস্পতিবার), ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আইডিয়াল স্কুলে ওড়না ও টুপি নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদ জানিয়ে লিগ্যাল নোটিশ

আইডিয়াল স্কুলে ওড়না ও টুপি নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদ জানিয়ে লিগ্যাল নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ড্রেস কোড পরিবর্তনের মাধ্যমে কৌশলে শিক্ষার্থীদের ওড়না ও টুপি ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ কর্তৃপক্ষ। অভিভাবক মহলের পক্ষ থেকেই এ নিয়ে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ এসেছে। দেশজুড়েও স্কুল কর্তৃপক্ষের এ হীন সিদ্ধান্তের সমালোচনা হচ্ছে ব্যাপকভাবে। স্কুল পরিচালনা কমিটি সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম শিক্ষার্থীদের দ্বীনি চেতনাকে অগ্রাহ্য করে যে একতরফা সিদ্ধান্ত নিয়েছে তার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে, গভর্ণিংবডির সভাপতি আবু হেনা মুর্শেদ জামানকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

‘আরএফএন’ নিউজ নিউজ পোর্টালের সহ-সম্পাদক, আবু-বকর সিদ্দিক হাসানের পক্ষে (২০ জানুয়ারী) লিগ্যাল নোটিশটি পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি শহিদ কামরুজ্জামান দূর্বার।

লিগ্যাল নোটিশে বলা হয়, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের সাম্প্রতিক ড্রেস কোড পরিবর্তনের মাধ্যমে সুকৌশলে মেয়েদের ওড়না ও টুপি ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে যে তথাকথিত প্রগতিশীলতার নামে দ্বীনহীন পরিবেশ তৈরীর সুদুরপ্রসারি পরিকল্পনা নিয়েছে তার তীব্র প্রতিবাদ। এদেশের আপামর মুসলমান এর দ্বীনি আদর্শকে শিরোধার্য করে চলবে এটাই সাংবিধানিক রক্ষাকবজ এর মাধ্যমে নিশ্চিত করা হয়েছে। কিন্তু নোটিশ গ্রহীতাগণ জনমানসের চিন্তা ও বিশেষ চেতনার বাইরে গিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের এজেন্ডা বাস্তবায়নে নিজেদের ইতিহাস ঐতিহ্যকে বিসর্জন দিয়ে মনগড়া তথা পাশ্চাত্যের কূপমন্ডুক কথিত প্রগতিশীল নিয়ম-নীতি চাপিয়ে দেবার যে হীন প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে তা অত্যন্ত ঘৃণিত একটি বিষয়। যা কখনো এদেশের সরলপ্রাণ মানুষরা মেনে নিতে পারে না। দেশ ও জাতির তাহযীব-তামুদ্দুন (সংস্কৃতি)-কে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করে কেউ বেশি দূর এগিয়ে যেতে পারবে না। এদেশের মানুষ স্বাধীনতা সংগ্রাম করেছেন হীন মতাদর্শের লোকজনের অন্যায় অবিচার বিভ্রান্তিকর অপচর্চাকে মুখ বুজে মেনে নেবার জন্য নয়।

নোটিশে আরো বলা হয়, গ্রহীতার উচিত হবে গৃহীত অপসিদ্ধান্ত থেকে ফিরে আসা, অন্যথায় বিভ্রান্তিকর ড্রেসকোড তথা পোশাক নির্দেশনা পরিবর্তন ক্ষুব্ধ জনমানষে যে ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটবে তা সামাল দেয়া কারো পক্ষে সম্ভব হবে না। শান্তি ও শৃঙ্খলা বিনষ্টকারী কুচক্রী মহলের অপতৎপরতা সম্পর্কে সজাগ থাকা এবং তাদের পাতা ফাঁদে পা না দেয়া।

নোটিশ দ্বারা আরো অবহিত করছেন যে পর্দা করা পুরুষ ও নারী উভয়ের জন্য ফরজ। সুতরাং ওড়না ব্যবহার নিষিদ্ধ করে পাশ্চাত্য মডেল চালু করার যে প্রচেষ্টা তা মহান দ্বীন ইসলামের নির্দেশিত পর্দার মতো ফরজ বিষয়কে অস্বীকার করে কুফরী করার মত গুরুতর অপরাধ করার সামিল। এই অপরাধ থেকে নিজেদেরকে পবিত্র রাখার আহ্বান রাখছেন।

মুসলমানের সন্তানের টুপি পড়ায় অভ্যস্ত করার জন্য ড্রেস কোডে প্রথম পোশাক নির্দেশনা টুপিকে অন্তর্ভুক্ত রাখা শিরোধার্য একটি বিষয়। ঢিলেঢালা পোশাক স্বাস্থ্যের জন্য আরামদায়ক। মানব শরীরের প্রতিটি অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাকে রোদ-বৃষ্টির ঠান্ডা থেকে রক্ষা করা অপরিহার্য্য। লোলুপ পুরুষের কুদৃষ্টি থেকে শরীরকে হেফাজত করার সর্বজনগ্রাহ্য বর্ম হলো ওড়না।

নোটিশে আরো বলা হয়, ওড়না নিষিদ্ধ করা কূপমন্ডুকতা ছাড়া আর কি হতে পারে? সে কারণে নোটিশ গ্রহীতাসহ সহযোগীদের এই ড্রেস কোড পরিবর্তনের গর্হিত অপকর্ম থেকে ফিরে থাকা ও পূর্ববর্তী ড্রেসকোড তথা পোশাক নির্দেশনাকে যথাযথ মর্যাদায় বহাল করার জোর দাবী জানাচ্ছেন। অন্যথায় আমার মোয়াক্কেলের দ্বীনি দায়িত্ব ও কর্তব্য হিসেবে পবিত্র আইন-আদালতে মোকদ্দমা স্থাপন করে ফৌজদারি ও দেওয়ানি আদালতে প্রতিকার প্রার্থনা করতে আইনি ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবেন এবং পরবর্তী সৃষ্ট ও জটিলতার জন্য যাবতীয় দায়-দায়িত্ব আপনি নোটিশ গ্রহীতার উপর বর্তাবে।

Facebook Comments