ইয়াওমুল ইসনাইন (সোমবার), ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

বিএসএফ’র পাহারায় ভারতীয় জেলেদের মাছ শিকার

অপপ্রচার বাঙ্গালি ও সেনাদের নামে

রাজশাহী সংবাদদাতা: রাজশাহীর পদ্মা নদীতে বিএসএফের পাহারায় অবৈধভাবে বাংলাদেশের সীমানায় প্রবেশ করে ইলিশ শিকারের সময় ভারতীয় জেলেদের একটি দলকে আটক করা নিয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার রাজশাহীর চারঘাট উপজেলা সদরের বালুঘাট এলাকায় পদ্মা ও তার শাখা বড়াল নদীর মোহনায় এ ঘটনা ঘটে। বিজিবির রাজশাহীর ১ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক মেজর আসিফ বুলবুল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চারঘাট উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম বলেন, প্রজনন মৌসুমের জন্য এখন নদীতে ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ অবস্থায় জেলেরা যেন নদীতে ইলিশ শিকার করতে না পারে সে জন্য বিজিবি সদস্যদের নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে নদীতে অভিযানে যায়। তারা দেখেন, পদ্মা-বড়ালের মোহনায় বাংলাদেশের সীমানার ভেতর একটি নৌকায় করে ভারতীয় জেলেদের একটি দল ইলিশ শিকার করছে।

তিনি বলেন, তারা গিয়ে তাদের আটকের চেষ্টা করেন। এ সময় দুইজন পালিয়ে যায়। আর একজনকে আটক করা সম্ভব হয়। এ সময় পালিয়ে যাওয়া জেলেরা গিয়ে বিএসএফকে বিষয়টি অবহিত করে। বিএসএফ সদস্যরা এসেই বিজিব’র সাথে সংঘর্ষে জড়ায় ও উত্তেজনাকর পরিবেশের সৃষ্টি করে। এক সময় বিএসএফ’র ওই দলটিকে শান্ত করতে বিজিবি প্রচেষ্টা চালায়। কিন্তু বিএসএফ সীমা লঙ্গণ করে শান্তিচুক্তি আইন লঙ্ঘন করে গুলি ছোড়ে বিএসএফ। তখন বিজিবির পক্ষ থেকেও গুলি ছোড়া হয়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় বিএসএফের এক সদস্যের। মৃতের নাম বিজয় ভান। বিজিবির গুলিতে আহত হয়েছে রাজবির সিং নামের আরও এক বিএসএফ সদস্য।  সে বিএসএফ-এর হেড কনস্টেবল। একপর্যায়ে বিএসএফ সদস্যরা পিছু হটে। এ ঘটনার পর একজন ভারতীয় জেলেকে আটক করে বিজিবির চারঘাট করিডর সীমান্ত ফাঁড়িতে আনা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে তার ইলিশ শিকারের জালও।

Facebook Comments