ইয়াওমুস ছুলাছা (মঙ্গলবার), ১৯ নভেম্বর ২০১৯

সুন্নতী খাবার আঙ্গুর ফল খাওয়ার উপকারীতা

সুন্নতী খাবার আঙ্গুর ফল খাওয়ার উপকারীতা

আঙ্গুর খাওয়া হলো সুন্নত যেটা হাবিবুল্লাহ হুজুরপাক সল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম উনি খেয়েছেন। আমাদের দেশে সারাবছরই পাওয়া যায়। তবে গরমের সময় এর দাম একটু চড়া থাকে। দাম যাই হউক ফলটি খেতে যেমন সুস্বাদু, শরীরের জন্য খুব উপকারি, আর সবচেয়ে বড় কথা হলো এটা খাওয়া সুন্নত, আর সম্মানীত সুন্নতেই রয়েছে সমস্থ রোগের শিফা। শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর আঙ্গুর আপনার বার্ধক্য রোধে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। আঙ্গুরের বীজ ও খোসায় প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। এক মাস যদি আপনি নিয়মিত এই ফলটি সেবন করেন তাহলে নিজের শারীরিক পরিবর্তন দেখে আপনি নিজেই অবাক হয়ে যাবেন। তা আপনি সবুজ, লাল, কালো যে ধরনের আঙ্গুরই খান না কেন।

১. হার্ট সুস্থ রাখে

আপনি কি আপনার হার্ট নিয়ে ভীষণ চিন্তিত? তাহলে রাতের খাবারের সময় এক গ্লাস আঙ্গুরের জুস খেতে পারেন। দেখবেন এতে আপনার হার্ট সুস্থ থাকবে। কমবে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও।

বোস্টন বিশ্বদ্যিালয়ের মেডিসিন বিভাগের এক গবেষণা বলছে, আঙ্গুর মানব দেহের এলডিএল (খারাপ কোলেস্টেরল) হ্রাস করে ও রক্তচাপ কমায়। ফলে সেখানকার গবেষকর এই উপসংহারে পৌঁছেছেন যে, আঙ্গুরসহ ফল এবং শাকসব্জী সমৃদ্ধ ডায়েট হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করতে পারে।

২. কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে

নিয়মিত আঙ্গুর খেলে হজম শক্তি বাড়ে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে। তাই যারা এ ধরনের সমস্যায় ভুগছেন তারা নিয়মিত এ ফলটি খাবেন। কেননা এতে রয়েছে অর্গানিক এসিড, সেলুলাস ও চিনি যা কোষ্ঠকাঠিন্য রোধে সহায়ক।

৩. শক্তি বাড়ে

আঙ্গুর একটি শক্তিবর্ধক ফল। রোজ আপনি এক মুঠ আঙ্গুর খেয়ে দেখুন কাজেকর্মে কতটা এনার্জি পাবেন। আঙ্গুরের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকার কারণে এগুলি হজম হওয়ার পরও ধীরে ধীরে আপনার শক্তি বাড়ায়।

৪. নিয়মিত রক্ত সঞ্চালন

যারা রক্ত সঞ্চালনের ভারসাম্যহীনতায় ভোগেন তাদের জন্য আঙ্গুরের জুস খুবই উপকারী। আঙ্গুরে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস বিদ্যমান থাকে, যা নিয়মিত রক্ত সঞ্চালনে সহায়ক ও ইনসুলিন বৃদ্ধি করে।

৫. ক্যান্সার রোধ করে

আঙ্গুরের জুসে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিইনফামিটরির মতো গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে, যা অঙ্গপ্রত্যঙ্গের প্রদাহ দূর করে। এই প্রদাহ ক্যান্সার রোগ জন্মের প্রধান কারণ। এ ছাড়া আঙ্গুর মাইগ্রেনের সমস্যা রোধ করে।

৬. ভুলে যাওয়া রোগ নিরাময়

অনেকে ছোট ছোট বিষয়গুলো দ্রুত ভুলে যান। আবার কোনো কথা বেমালুম স্মৃতি থেকে মুছে যায়। এটি আসলে এক ধরনের রোগ। এই রোগটি নিরাময়ে আঙ্গুর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

৭. মাথাব্যথা দূর করে

হঠাৎ করে শুরু হওয়া মাথাব্যথা দূর করতেও আঙ্গুরের তুলনা হয় না। এতে করে মাথাব্যথায় কিছুটা আরামবোধ হয়।

৮. চোখের স্বাস্থ্য রক্ষা করে

চোখ ভালো রাখতে কার্যকর এই ফল। বয়সজনিত কারণে যারা চোখের সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্য ভালো ওষুধ হল এই আঙ্গুর।

৯. স্তন ক্যান্সার নির্মূল

স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকিতে আছেন এমন নারীরা খেতে পারেন আঙ্গুর। গবেষণায় দেখা গেছে আঙ্গুরের উপাদানগুলো ক্যানসার সৃষ্টিকারী কোষের বিরুদ্ধে কাজ করতে সক্ষম।

১০. কিডনি ভালো রাখে

আঙ্গুরের উপাদানগুলো ক্ষতিকারক ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা সহনশীল অবস্থায় রাখে। সেই সঙ্গে কিডনির রোগব্যাধির বিরুদ্ধেও লড়াই করে।

১২. ত্বক উজ্জ্বল ও মসৃণ করে

আঙ্গুরে থাকা ফাইটো কেমিক্যাল ও ফাইটো নিউট্রিয়েন্ট ত্বকের সুরক্ষায় কাজ করে। এত প্রচুর পরিমাণে থাকা ভিটামিন সি ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখে।

১৩. চুলের যত্নে

একটু অযত্নেই চুল খুশকিতে ভরে যায় এমন অনেকেই আছেন। এছাড়া চুলের আগা ফেটে গিয়ে রুক্ষ হয়ে পড়ে, ধূসর রঙের হয়ে যায় এবং পরিশেষে চুল ঝরতে থাকে। এইসব সমস্যার সমাধানে খেতে পারেন আঙ্গুর।

Facebook Comments