ইয়াওমুস ছুলাছা (মঙ্গলবার), ০৪ আগস্ট ২০২০

সব কিছু নিয়ে রাজনীতি করা বিএনপির স্বভাব:নাসিম

নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপি ভুলের রাজনীতিতে ঘুরপাক খাচ্ছে।

তিনি বলেন, সবকিছু নিয়ে রাজনীতি করা বিএনপি নেতাদের একটা স্বভাবে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশে যেকোনো ঘটনার জন্য সরকারকে দায়ী করা যেন একটা ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। একজন দুর্নীতিবাজকে গ্রেফতার করলেও আপনারা তার পক্ষ নিয়ে রাজনীতি শুরু করবেন এটা মানা যায় না। দুর্নীতিবাজদের রাজনীতিতে সাপোর্ট করার কারণে বিএনপির রাজনীতি ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে।

সোমবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ১৪ দলের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সবকিছু নিয়ে অভিযোগ করা বিএনপির একটা অভ্যাস হয়ে দাঁড়িয়েছে। যে কারণে আজ তাদের দলের এই করুন অবস্থা। এফ আর টাওয়ারের মালিককে গ্রেফতার করার সাথে সাথে বিএনপি থেকে বলা হল, রাজনৈতিক কারণে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমি বলি, বিএনপি নেতারা কি অপরাধ করতে পারে না? তিনি ওই ভবনের মালিক। বিএনপি সবকিছু নিয়ে রাজনীতি করতে চায়, তাই তাদের এই করুন অবস্থা হয়েছে।

তিনি বলেন, আপনারা সবকিছু নিয়ে রাজনীতি করবেন না। এফ আর টাওয়ারের মালিক ১৮ তলার পারমিশন নিয়ে ২২ তলা বিল্ডিং করেছে। এই অপরাধে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একজন দুর্নীতিবাজকে গ্রেফতার করলেই আপনারা তার পক্ষ নিয়ে রাজনীতি শুরু করেন কেন?

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি ভুলের রাজনীতিতে ঘুরপাক খাচ্ছে। এজন্য যেকোনো সময় তারা ষড়যন্ত্রের রাজনীতি শুরু করতে পারে। তাদের এ ধরনের রাজনীতি সম্পর্কে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সব অনিয়মের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে ১৪ দলের পক্ষ থেকে কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

কর্মসূচির মধ্য রয়েছে-আগামী ১০ এপ্রিল মতিঝিলে এবং ১১ এপ্রিল ধানমন্ডিতে অভিভাবক সমাবেশ। ১৫ ও ১৬ এপ্রিল রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাসহ বুদ্ধিজীবী, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশ নেবেন।

এছাড়া মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে আগামী ১৯ এপ্রিল রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের আয়োজন করা হবে।

এর আগে মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, গণআজাদী লীগের সভাপতি এসকে শিকদার সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments