ইয়াওমুল আরবিয়া (বুধবার), ০৮ এপ্রিল ২০২০

ফুরফুরে মেজাজে মির্জা ফখরুল

নিউজ ডেস্ক: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সিদ্ধান্তেই দলের চারজন এমপি হিসেবে আজ (সোমবার) শপথগ্রহণ করেছেন।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশানের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তাকেও ফুরফুরে মেজাজে দেখা যায়।
সংবাদ সম্মেলনে তারেক রহমানের পক্ষ থেকে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, ‘ভোটাধিকার ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার, দেশনেত্রীর মুক্তির দাবিতে সংসদে কথা বলার সীমিত সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সংসদ, রাজপথের সংগ্রাম যুগপৎভাবে চালিয়ে যাওয়াকে যুক্তিযুক্ত মনে করছি।’

সংসদ সদস্য হিসেবে তিনি শপথ নেবেন কি না এবং জাহিদুর রহমান জাহিদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, সময় হলেই আপনারা সব জানতে পারবেন।

সংসদে যাওয়ার সিদ্ধান্তে জোট ভাঙার আশঙ্কা রয়েছে কি না- এমন প্রশ্নে ফখরুল বলেন, এ ধরনের আশঙ্কা করছি না।

তৃণমূল নেতারা বিএনপির সংসদে যাওয়ার সিদ্ধান্তকে কীভাবে নেবে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত নিশ্চয়ই মেনে নেবেন। আমরা কোনো চাপে নই, সম্পূর্ণ রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত হিসেবেই সংসদে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক কর্নেল (অব.) অলি আহমেদ আপনাদের (বিএনপি) এ সিদ্ধান্তকে ‘হঠকারী সিদ্ধান্ত’ বলে মন্তব্য করেছেন, এ বিষয়ে কি বলবেন? জবাবে ফখরুল বলেন, এটা ওনার মন্তব্য।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি থেকে নির্বাচিত চার সংসদ সদস্য আজ (সোমবার) শপথগ্রহণ করেছেন। এর ফলে একমাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়া দলটি থেকে নির্বাচিত বাকি সবাই শপথগ্রহণ করলেন।

শপথ নেয়া চারজন হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের মো. আমিনুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের মো. হারুনুর রশীদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের আবদুস সাত্তার ভূঁইয়া এবং বগুড়া-৪ আসনের মোশাররফ হোসেন।

এর আগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে বিএনপি শপথ না নেয়ার ঘোষণা দিলেও গত বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে নির্বাচিত বিএনপির সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান জাহিদ শপথগ্রহণ করেন। পরে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

Facebook Comments