ইয়াওমুল খামিছ (বৃহস্পতিবার), ১৪ নভেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশে ২ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করতে যাচ্ছে সৌদি আরব

সচিবালয় প্রতিবেদক : অন্তত ১৬টি প্রকল্পে দেড় হাজার থেকে দুই হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করতে যাচ্ছে সৌদি আরব। এ বিষয়ে সৌদি আরবের দুই মন্ত্রীসহ ৩৪ সদস্যের প্রতিনিধিদল ঢাকায় এসেছে। তারা বাংলাদেশে জ্বালানি, স্বাস্থ্য ও বিমান চলাচলসহ বেশ কিছু খাতে মোটা অঙ্কের বিনিয়োগ করবে।

বৃহস্পতিবার বিপুল পরিমাণ এই বাণিজ্যের বিষয়ে বাংলাদেশ সকোরের বিভিন্ন পর্যায়ে বৈঠক করবে প্রতিনিধি দল।বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম এসব তথ্য জানিয়েছেন।

এর আগে গতকাল বুধবার ঢাকায় সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহকে পাশে নিয়ে একটি সংবাদ সম্মেলনও করেছিলেন বিডা’র নির্বাহী চেয়ারম্যান।তখন রাষ্ট্রদূত বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশের ইতিহাসে এটাই সৌদি আরবের সবচেয়ে বড় প্রতিনিধি দলের সফর।’

তিনি আরো বলেন, ‘ইউরোপ ও আমেরিকায় সৌদি বিনিয়োগ ‘সর্বোচ্চ পর্যায়ে’ পৌঁছে গেছে। এখন তারা পূর্বের দিকে ঝুঁকেছে এবং বাংলাদেশ এর জন্য সবচেয়ে সঠিক জায়গা।’

রাষ্ট্রদূত জানান, দুটি সৌদি কোম্পানি বায়োমেডিকেল প্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগ করবে। তারা ময়মনসিংহ ও জামালপুরে বাংলাদেশি টেকনিশিয়ানদের প্রশিক্ষণ দেবে এবং তাদের সৌদি আরব ও মধ্যপ্রাচের অন্যান্য দেশে নিয়োগের সুযোগ করে দেবে। বিমান চলাচল খাতে রক্ষণাবেক্ষণ, মেরামত ও অন্যান্য সেবার অবকাঠামো তৈরিতে তারা বিনিয়োগ করবে। এই খাতে বিনিয়োগের পরিমাণ ৫০ থেকে ১০০ কোটি ডলার হতে পারে। এ ছাড়া সৌদি সহায়তায় ফেনীতে ১০ কোটি ডলারের একটি সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণ করা হবে।

বিডা সূত্রে জানা গেছে, সৌদি আরবের বাণিজ্য ও বিনিয়োগমন্ত্রী মাজেদ বিন আব্দুল্লাহ আল-কাসাবি এবং অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী মোহাম্মদ বিন মেজইয়ে আলতাইজরি নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলটি বিশেষ ফ্লাইটে বুধবার মধ্যরাতে ঢাকায় পৌঁছেছে।

প্রতিনিধি দলের অর্ধেক সদস্যই সৌদি আরবের বেসরকারি খাতের, যেখানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় কোম্পানি আরামকো-এর মতো প্রতিষ্ঠানও রয়েছে।

সৌদির এই প্রতিনিধি দল ঢাকার ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ নিয়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও রাষ্ট্রীয় কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিদের সঙ্গে সংলাপে যোগ দেওয়ারও কথা রয়েছে।

Facebook Comments