ইয়াওমুল জুমুআ (শুক্রবার), ১৫ নভেম্বর ২০১৯

ক্ষমতায় যেতে ধর্মকে ব্যবহার করেছে বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য সব সময় ইসলামকে ব্যবহার করেছে। এখনো করছে। ধর্মকে ব্যবহার করে তারা বাংলাদেশের ধর্মভীরু মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে।

শুক্রবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির ৫ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আলেম সমাজের জন্য বিএনপি-জামায়াত কোনো কাজ করেনি। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইসলামের জন্য, আলেম সমাজের জন্য অনেক কাজ করেছেন। বাংলাদেশের আলেমদের শতবর্ষের দাবি ছিল একটি ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা। তবে অনেকেই ক্ষমতায় এলেও আরবি বিশ্ববিদ্যালয় হয়নি। শত বর্ষের দাবি পূরণে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করেছেন শেখ হাসিনা।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতি অনেক পুরোনো দাবি। বিএনপি-জামায়াত ইসলামের কথা বলে ক্ষমতায় গেলেও কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতি দেয় নাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, আওয়ামী লীগ সরকার কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতি দিয়েছে।’

‘কওমি মাদ্রাসার সনদ এখন বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স ডিগ্রির সমমানের স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। শুধু স্বীকৃতি দেওয়া হয়নি, এ নিয়ে সংসদে আইন পাস করা হয়েছে’, বলেন তিনি।

ধর্ম নিয়ে যেমন বিএনপি রাজনীতি করে, তেমনি বেগম জিয়ার শারীরিক সমস্যা নিয়েও বিএনপি রাজনীতি করছে বলে মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের চিকিৎসা করতে এসে সিঙ্গাপুরের চিকিৎসক দল ও ভারতের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবী শেঠি বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাকে বিশ্বমানের বলে অভিহিত করেছেন। অথচ বিএনপি নেতারা এই মেডিক্যালের সেবার মান নিয়ে অভিযোগ করছেন। এতেই বোঝা যায় বিএনপি খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করতে চাইছে।

সংগঠনের চেয়ারম্যান মাওলানা ইসমাইলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, প্রচার সম্পাদক আক্তার হোসেন প্রমুখ।

Facebook Comments