ইয়াওমুল আরবিয়া (বুধবার), ১৩ নভেম্বর ২০১৯

ইমরানের মন্ত্রিসভার অর্ধেকই আমার লোক: পারভেজ মোশাররফ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানের সাবেক সেনাশাসক ও অল পাকিস্তান মুসলিম লীগের (এপিএমএল) প্রধান জেনারেল পারভেজ মোশাররফ জানিয়েছেন, ইমরান খানের মন্ত্রিসভার অর্ধেক সদস্যই তার অনুগত।তিনি চাইলেই দেশে ফিরতে পারেন।তার দেশে ফেরার মত অনুকূল পরিবেশ বিরাজ করছে। তবে এ মুহূর্তেই দেশে ফেরার কোনো পরিকল্পনা তার নেই।
স্থানীয় সময় শুক্রবার রাতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী দুবাইয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।ওই সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের সাবেক দুই সরকার প্রধান নওয়াজ শরীফ ও আসিফ আলী জারদারির কড়া সমালোচনাও করেন তিনি।
পাকিস্তানের সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী মনে করেন, পাকিস্তানে বর্তমানে রাজনৈতিক পরিবেশ ভালো।তেহরিক ই ইনসাফের প্রধান ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন মন্ত্রিসভার অর্ধেক সদস্য তার লোক। পারভেজ মোশাররফ জানান, পাকিস্তানের বর্তমান আইনমন্ত্রী তার, অ্যাটর্নি জেনারেল খোদ তার আইনজীবী ছিলেন।এরপরও ইমরানকে দিয়ে তার মামলাগুলো প্রত্যাহার করিয়ে নেয়ার তদবির তিনি করতে চান না বলে জানান মোশাররফ।
স্বদেশে ফেরার ইঙ্গিত দিয়ে ক্ষমতাচ্যুত সাবেক এই স্বৈরশাসক বলেন, পাকিস্তান আমার দেশ, আমার শিকড় ওখানটায়। আমার বন্ধু ও স্বজনরা পাকিস্তানেই আছে। আমি অবশ্যই দেশে ফিরব।
পাকিস্তানের দুই প্রধান রাজনৈতিক দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ ও পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) কড়া সমালোচনা করেন স্বেচ্ছা দুবাইয়ে নির্বাসনে থাকা মোশাররফ। বলেন, পাকিস্তান মুসলিম লিগের প্রধান নওয়াজ শরীফ ও পিপিপির কো-চেয়ারম্যান আসিফ আলী জারদারি দুজনেই লুটেরা।
জারদারির সরাসরি সমালোচনা করে মোশাররফ বলেন, সাবেক প্রেসিডেন্ট জারদারি একজন লুটেরা। তিনি (জারদারি) বেশ কয়েকটি হত্যা ও চাঁদাবাজির মামলার আসামি।তিনি করাচিতে বাসভবন বিলাওয়াল হাউজের আশপাশে অন্তত ৪০ টি বাড়ি স্বল্পমূল্যে লিজ নিয়ে দখল করে রেখেছেন।মোশাররফ গণমাধ্যমকে জারদারি ও নওয়াজ শরীফের বিরুদ্ধে তদন্ত করার আহবান জানান।
প্রসঙ্গত, নওয়াজ শরীফ ও আসিফ আলী জারদারি দুজনেই পারভেজ মোশাররফের কড়া সমালোচক। তারা পাকিস্তান ধ্বংসের জন্য মোশাররফকে দায়ী করেন।এই সমালোচনার জবাব দেন মোশাররফ।
এদিন ৯ বছরের এ সামরিক শাসক এপিএমএল নামে দল গঠনের কারণও ব্যাখ্যা করেছেন। বলেছেন, নওয়াজ শরীজ ও আসিফ আলী জারদারিকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখতে তিনি দল গঠন করেছেন।তার দল গঠনের উদ্দেশ্য ছিল এই দুর্নীতিবাজ যেন রাজনীতিতে আর থাকতে না পারে।তিনি জানান, নতুন চেয়ারম্যান হিদায়াতুল্লাহ খেসগি তার অনুপস্থিতিতে এপিএমএল পূনর্গঠন ও সংগঠিত করবেন।

Facebook Comments