ইয়াওমুস ছুলাছা (মঙ্গলবার), ১৫ অক্টোবর ২০১৯

আগ্রাসনের কাজে ইরাককে ব্যবহার করা যাবে না: আয়াতুল্লাহ সিস্তানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরাকের সবচেয়ে প্রভাবশালী শিয়া আলেম আয়াতুল্লাহ আলী সিস্তানি বলেছেন, তৃতীয় কোনো দেশের বিরুদ্ধে আগ্রাসন চালানোর কাজে ইরাকি ভূখণ্ড ব্যবহার করা যাবে না। তিনি বুধবার ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় নাজাফ শহরে জাতিসংঘ মহাসচিবের ইরাক বিষয়ক নয়া বিশেষ দূত জিনিন হেনিস-প্লাসচার্টের (Jeanine Hennis-Plasschaert) সঙ্গে এক বৈঠকে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরাকে বসে ইরানের ওপর নজর রাখার দুরভিসন্ধি প্রকাশ করার পর ইরাকের এই শিয়া আলেম এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করলেন।

জাতিসংঘের প্রতিনিধি হিজাব পরে আয়াতুল্লাহ সিস্তানির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন (বুধবারের ছবি)

আয়াতুল্লাহ সিস্তানি বলেন, অন্য কোনো দেশের কোনো রকম ক্ষতি করার কাজে ইরাকি ভূখণ্ড ব্যবহার করা যাবে না। প্রতিবেশী সব দেশের সঙ্গে ইরাকের ‘ভালো ও ভারসাম্যপূর্ণ’ সম্পর্ক বজায় রয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশগুলোর অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের কোনো অভিপ্রায়ও বাগদাদের নেই।

ইরাকে বর্তমানে হাজার হাজার মার্কিন সেনা মোতায়েন থাকলেও তাদের জন্য কোনো স্থায়ী বিদেশি সেনাঘাঁটি নেই। গত রোববার মার্কিন টেলিভিশন নেটওয়ার্ক সিবিএস’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প ইরাকে একটি স্থায়ী সেনা ঘাঁটি স্থাপনের আগ্রহ প্রকাশ করেন। তিনি দম্ভোক্তি করে বলেন, ইরানের তৎপরতার ওপর নজর রাখার জন্য এরকম একটি ঘাঁটি স্থাপন জরুরি।

সূএ: পার্সটুডে

Facebook Comments