ইয়াওমুল খামিছ (বৃহস্পতিবার), ১৪ নভেম্বর ২০১৯

শ্রেণি শিক্ষিকা হাসনাহেনা গ্রেফতার

স্কুলছাত্রী অরিত্রীকে আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক হাসনা হেনাকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার (০৫ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ১১টার দিকে রাজধানীর উত্তরা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপকমিশনার খন্দকার নুরুন্নবী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শিক্ষক হাসনা হেনাকে ডিবি কার্যালয়ে নেওয়া হয়েছে। ডিবির পশ্চিম ডিভিশনের এসি আতিকের নেতৃত্বে মতিঝিল জোনাল পূর্ব টিম উত্তরার এক হোটেল থেকে হাসনা হেনাকে গ্রেফতার করে।

এদিকে, অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বুধবার (০৫ ডিসেম্বর) মামলাটির তদন্ত ভার পল্টন থানা থেকে ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়।

সোমবার(০৩ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর শান্তিনগরের নিজ বাসায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেয় অরিত্রী। মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার(০৪ ডিসেম্বর) রাতে রাজধানীর পল্টন থানায় ‘আত্মহত্যার প্ররোচণাকারী’ হিসেবে স্কুলের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, প্রভাতী শাখার শিফট ইনচার্জ জিনাত আখতার ও প্রভাতী শাখার শ্রেণি শিক্ষিকা হাসনা হেনার বিরুদ্ধে মামলা করেন অরিত্রির বাবা।

ভিকারুননিসার শিক্ষক আতাউর রহমান, খুরশিদ জাহান এবং গভর্নিং বডির সদস্য ফেরদৌসী বেগমকে নিয়ে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করে স্কুল কর্তৃপক্ষ। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌসসহ তিন শিক্ষককে বরখাস্ত করে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডি।

Facebook Comments