ইয়াওমুল আহাদ (রবিবার), ২৯ মার্চ ২০২০

সিলেটে বাসা থেকে মা-ছেলের লাশ উদ্ধার

সিলেটের একটি বাসা থেকে এক নারী ও তার ছেলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  সিলেট কোতোয়ালি থানার ওসি জানান, আজ বেলা ২টার দিকে নগরীর মিরাবাজার খাঁরপাড়ার মিতালী আবাসিক এলাকার একটি ভবনের নিচতলা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।
নিহতরা হলেন নগরীর বারুতখানা এলাকার হেলাল আহমদের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৪০) তার ছেলে রবিউল ইসলাম রূকন (১৬)।
রুকন শাহ্জালাল জামেয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন। এ সময় রোকেয়ার পাঁচ বছর বয়সী মেয়ে রাইসা বেগমকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
মিতালী আবাসিক এলাকার ১৫/জে নম্বর বাসার নিচতলায় দুই সন্তানকে নিয়ে  ভাড়া থাকতেন রোকেয়া।
রোকেয়া ও তার ছেলে রবিউল রোকেয়া ও তার ছেলে রবিউল রোকেয়ার ভাই জাকির হোসেন বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে বোনের মোবাইল ফোন বন্ধ পাচ্ছিলেন। আজ বোনের বাসায় এসে অনেক ডাকাডাকির করেও কোনো সাড়া না পেয়ে বাড়ির মালিক সালমান হোসেনকে খবর দেন।
পরে সালমানের কাছে থাকা চাবি দিয়ে দরজা খুলে ঘরের মধ্যে এক বিছানায় বোন ও অন্য বিছানায় ভাগ্নে রুকনের লাশ পড়ে থাকতে দেখেন বলে জানান জাকির।
রোকেয়ার বাড়ির লোকজনের কাছে খবর পেয়ে রোকেয়া ও তার ছেলে রুকনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় তার মেয়ে রাইসাকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।
”রোকেয়াকে গলা কেটে ও রুকনকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। শিশু রাইসাকেও হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। তার গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।”
ওসি বলেন, হত্যাকাণ্ডের কারণ প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে হত্যাকাণ্ডের ধরন দেখে মনে হচ্ছে কয়েকজন এতে অংশ নিয়েছিল। পুলিশ আলামত সংগ্রহ করে তদন্তের কাজ শুরু করেছে।
ঘটনার পর থেকে বাসার কাজের মেয়েকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানান তিনি।
লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
Facebook Comments