ইয়াওমুস সাবত (শনিবার), ১৯ অক্টোবর ২০১৯

মুসলমানদের প্রতিষ্ঠানে বৌদ্ধদের হামলা: শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থা জারি

শ্রীলঙ্কায় সংখ্যালঘু মুসলিমদের ওপর হামলা চালিয়েছে সংখ্যাগরিষ্ঠ বৌদ্ধ সম্প্রদায়। মসজিদ ও মুসলমানদের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের ওপর একাধিক হামলার পর দেশটিতে ১০ দিনের জন্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে সরকার। এছাড়া মধ্যাঞ্চলীয় কান্দি শহরের কিছু কিছু এলাকায় সংখ্যাগরিষ্ঠ বৌদ্ধ সিনহালারা মুসলিমদের দোকানপাট ও বাড়িঘরে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করার পর সোমবার সেখানে কারফিউ জারি করা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও বিবিসি বাংলা।

স্থানীয় এক কর্মকর্তা বলেন, ‘চারটি মসজিদ, ৩৭টি বাড়িঘর, ৪৬টি দোকান এবং ৩৫টি গাড়িতে ভাঙচুর ও আগুন দেওয়া হয়েছে। সবকিছু ভেঙে ফেলা হয়েছে, মুসলিমরা এখন সেখানে আতঙ্কের মধ্যে বসবাস করছে।’ কর্মকর্তারা বলেন, মঙ্গলবার আগুনে পুড়ে যাওয়া একটি বাড়ির পাশে মুসলিম এক তরুণের মরদেহ উদ্ধারের পর সেখানে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। মুসলিমরাও প্রতিশোধ নিতে পাল্টা হামলা চালাতে পারে এই আশঙ্কায় কর্তৃপক্ষ জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে।

এ বিষয়ে সরকারের মুখপাত্র বলেন দয়াসিরি জয়সেকারা বলেছেন, দেশের অন্য এলাকাগুলোয় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়া রোধে মন্ত্রিপরিষদের জরুরি বৈঠকে ১০ দিনের জরুরি অবস্থা ঘোষণার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এছাড়া ফেসবুক ব্যবহার করে যারা সহিংসতা উসকে দেবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

Facebook Comments