ইয়াওমুল ইসনাইন (সোমবার), ১৮ নভেম্বর ২০১৯

উচ্চপদস্থ ১২ পাকিস্তানি সেনা কর্মকর্তা চাকরিচ্যুত

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের সেনাবাহিনী প্রধান চিফ অব আর্মি স্টাফ জেনারেল রাহেল শরিফ দুর্নীতির অভিযোগে উচপদস্থ সামরিক কর্মকর্তাসহ ১২ জনকে চাকরিচ্যুত করেছেন। এদের মধ্যে তিন জন ৩ তারকা প্রাপ্ত জেনারেলও রয়েছেন। পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যম ডন এ সংবাদ জানিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সেনাবাহিনীর একজন ইন্টেলিজেন্স কর্মকর্তা জানান, চাকরিচ্যুতদের মধ্যে আরও রয়েছেন একজন মেজর জেনারেল, লেফটেন্যান্ট কর্নেল, পাঁচজন ব্রিগেডিয়ার এবং একজন মেজর।

১২ জনের মধ্যে ৮ জন বেলুচিস্তানের ফ্রন্টিয়ার কর্পসে দায়িত্বরত ছিলেন। এই প্যারামিলিটারি বাহিনীতে কাজ করার সময় তারা ব্যাপক দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েছিল।

সেনাবাহিনী প্রধানের নির্দেশে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করেছিলেন জেনারেল জুবায়ের মোহাম্মাদ। অভিযুক্ত অফিসারদেরকে বলা হয়েছিল দুর্নীতি করে কামানো সমস্ত অর্থ ফেরত দেয়ার জন্য। তাদের কাছ থেকে শুধু পেনশনের টাকা বাদে আর সমস্ত সুযোগ সুবিধা তুলে নেয়া হয়েছে।

এই ঘটনায় জেনারেল রাহেল বলেছেন,‘পাকিস্তান সেনাবাহিনীর উন্নত ও আদর্শ ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করতে সব ধরনের পদক্ষেপই তারা নেবেন।’ কারণ বিশ্ব সন্ত্রাসের সাথে মোকাবেলা করা সম্ভব না যতক্ষণ পর্যন্ত নিজেরা দুর্নীতিমুক্ত হওয়া যাচ্ছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নেওয়াজ শরিফের ৩ ছেলেমেয়ে পানামা নথি কেলেঙ্কারিতে বিদেশে অর্থ পাচারের দায়ে ফেসে যাওয়ার পর এমনিতেই ক্ষমতাসীনদের দুর্নীতি নিয়ে নানান জল্পনা হচ্ছে পাকিস্তানে। সাধারণ মানুষ ব্যাপারটাতে অসন্তুষ্ট। বিরোধী দলের নেতা প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করছেন।

এর মধ্যে দুর্নীতির অভিযোগে সামরিক অফিসারদের চাকরি যাওয়ার ঘটনা খানিকটা আকস্মিক হলেও পাকিস্তানের সাধারণ মানুষ ব্যাপারটাকে স্বাগত জানিয়েছে।

Facebook Comments