ইয়াওমুস সাবত (শনিবার), ১৭ এপ্রিল ২০২১

১১ জনের যাবজ্জীবন মুসলিম ব্যবসায়ীকে খুনের দায়ে

আর.এফ.এন নিউজ :

 

এক সংখ্যালঘু মাংস ব্যবসায়ীকে মারধর ও খুনের অভিযোগে ১১ জনকে যাবজ্জীবন কারাবাসের সাজা শোনাল ভারতের ঝাড়খন্ডের ফার্স্ট ট্র্যাক আদালত। এর মধ্যে রাজ্যটির ক্ষমতাসীন দল বিজেপি’র এক স্থানীয় নেতাও রয়েছেন। বুধবারই এই সাজা ঘোষণা করে আদালত।
আদালতের অতিরিক্ত বিচারক ওম প্রকাশ বিজেপি’র মিডিয়া-ইন-চার্জ নিত্যানন্দ মাহাতো সহ ওই ১১ জনকে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৪৭, ১৪৮ এবং ১৪৯ ধারায় অভিযোগে অভিযুক্ত করেন।
উল্লেখ্য,গরুর মাংস বহনের অভিযোগে গত বছরের ২৯ জুন ঝাড়খণ্ডের রামগড় শহরের বাজার তাণ্ড এলাকায় আলিমুদ্দিন আনসারি (৪০) এক ব্যক্তিকে মারধরের অভিযোগ ওঠে একদল মানুষের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তরা সকলেই গো-রক্ষা সমিতির সদস্য বলে জানা যায়। (পরবর্তীতে সেই মাংস ফরেন্সিক পরীক্ষার পর বিফ বলে জানা যায়)। আনসারির ওপর হামলার পাশাপাশি মাংস বহনকারী তার গাড়িটিকেও অগ্নিসংযোগ ঘটানো হয়। ওই ঘটনায় রাজ্য জুড়ে প্রবল সোরগোল পড়ে যায়। চাপে পড়ে তদন্ত শুরু করে রাজ্য প্রশাসন। আটক করা হয় ১২ অভিযুক্তকে। এরপর গত ১৭ সেপ্টেম্বর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করা হয় আদালতে।
এদিন রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটার এস.কে.শুক্লা জানান ‘আমরা আদালতের কাছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি (মৃত্যুদণ্ড)-এর আবেদন জানিয়েছিলাম। কিন্তু আদালত এদিন ১২ জন অভিযুক্তের মধ্যে ১১ জনের যাবজ্জীবন সাজার ঘোষণা দেয়। অভিযুক্ত এক নাবালককে জুভেনাইল আদালতে বিচার হবে’।

Facebook Comments