ইয়াওমুল ইসনাইন (সোমবার), ২৯ নভেম্বর ২০২১

হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ চীনের, উদ্বেগে যুক্তরাষ্ট্র

হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ চীনের, উদ্বেগে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শব্দের চেয়ে ৫ গুণ বেশি গতিসম্পন্ন (হাইপারসনিক) ক্ষেপণাস্ত্রের সফল উৎক্ষেপণ চীন সফলভাবে সম্পন্ন করায় উদ্বেগে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার চীনের সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে ফিন্যান্সিয়াল টাইমস।

চলতি বছর জুলাইমাসে দক্ষিণ চীন সাগর এলাকায় এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করেছে চীন। তবে সেটির ক্ষমতা ও গতি সম্পর্কিত তথ্য প্রকাশিত হয়েছে সম্প্রতি।

এদিকে, এ ঘটনায় ব্যাপকভাবে বিস্ময় ও অস্বস্তিতে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর সদর দফতর পেন্টাগন। কারণ, এই পরিমাণ ক্ষমতাসম্পন্ন ক্ষেপণাস্ত্র কোনো দেশের রয়েছে- এমন তথ্য আগে শোনা যায়নি।

আন্তর্জাতিক যুদ্ধাস্ত্র বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এই ক্ষেপণাস্ত্র অকার্যকর করার মতো কোনো যান্ত্রিক ব্যবস্থা এখন পর্যন্ত আবিষ্কার হয়নি।

তবে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অবশ্য জানিয়েছে, যে বস্তুটির পরীক্ষা করা হয়েছে, সেটি নামে ক্ষেপণাস্ত্র হলেও আসলে কোনো যুদ্ধাস্ত্র নয়। চীনের মহাকাশ অভিযানের জন্য এই ক্ষেপণাস্ত্রটি প্রস্তুত করা হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘এই ক্ষেপণাস্ত্রটি নভোযানের সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে এবং মহাকাশে পৌঁছে নভোযান থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর এটি ধ্বংস করে ফেলা হবে।’

আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিশ্লেষকদের একাংশ বলছেন, নিজেদের ভূমিকে নিরাপদ রাখতে গত বছর থেকে আন্তমহাদেশীয় ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র অকার্যকর ব্যবস্থা চালু করেছে যুক্তরাষ্ট্র। হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে তার জবাব দিয়েছে চীন।

Facebook Comments Box