ইয়াওমুস সাবত (শনিবার), ২৪ জুলাই ২০২১

যাত্রাবাড়ীতে ছুরিকাঘাতে আহত কিশোরের মৃত্যু

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ধলপুরে ছুরিকাঘাতে আহত কিশোর আফসার উদ্দিন শিহাব (১৫) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মারা গেছে। এই ঘটনায় নিহতের স্বজনরা থানায় মামলা করার পর অভিযুক্ত কিশোর হৃদয়কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) রাত ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে বিকেলে ধলপুর ১০ নম্বর মানিক মিয়া কোয়ার্টারে ছুরিকাঘাতে আহত হয় সে।

জানা গেছে, ধলপুর বাদল সরকার গলির ৬০/৮/এ নম্বর মানিক মিয়ার বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে ভাড়া থাকতো শিহাব। তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মইষারচর গ্রামে। বাবা সিএনজি চালক সাজউদ্দিন মিয়া সাজু ও মা হাসিনা বেগম গৃহিণী।

তাৎক্ষণিক শিহাবকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসা বন্ধু মজিবর জানায়, বুধবার (১৮ এপ্রিল) তার ছোট ভাই ইমরান ও শিহাবসহ কয়েকজন ধলপুর ১০ নম্বর মানিক মিয়া কোয়ার্টারের পুকুরে যায় গোসল করতে। সেখানে ইমরান গাছ থেকে কয়েকটি আম পাড়ে। এসময় পাশের সিটি কলোনির জুয়েল, হৃদয়সহ কয়েকজন ইমরানের কাছে আম চায়। তাদের আম না দেওয়ায় কথা কাটাকাটি হয় ও এক পর্যায়ে তারা ইমরানকে চড়-থাপ্পর মারে। পরে সেখান থেকে চলে আসলেও ওইদিনই সেখানে এক বিচারের মাধ্যমে তাদের মিল করিয়ে দেওয়া হয়।

এরপর বৃহস্পতিবার বিকেলে শিহাবসহ তার বন্ধুরা কোয়ার্টারে ক্রিকেট খেলার জন্য গেলে খেলা শেষে হৃদয়, জুয়েল সহ ২০/২৫ জন তাদের ধাওয়া করে। কোয়ার্টার থেকে দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় শিহাবকে ধরে হৃদয় তার সঙ্গে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে। এতে শিহাবের পেটের বাম পাশে গুরুতর জখম হয়। পরে শিহাবের বন্ধুরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় ইসলামী হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে দ্রুত ঢামেকে পাঠিয়ে দেন।

নিহত শিহাবের বাবা সাজু মিয়া জানান, গতকাল সন্ধ্যায় শিহাবকে ঢামেকের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়। অস্ত্রোপচার কক্ষে নেওয়া হলে রাত ৩টায় সেখানে তার মৃত্যু হয়।

Facebook Comments Box