ইয়াওমুস সাবত (শনিবার), ২৪ জুলাই ২০২১

ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনাদের শানে মানহানিকর বক্তব্য দেয়ার দায়ে ডিএমপি কমিশনারকে আইনী নোটিশ

ডিএমপি কমিশনারকে আইনী নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘মাস্ক না পরলে ফেরেশতারা এসে বাঁচাবে না’ -এমন মানহানিকর বক্তব্য দেয়ার দায়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার শফিকুল ইসলামকে সতর্ক করে আইনী নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, মুহম্মদপুর তাজ জামে মসজিদের খতিব মুফতী আবুল খায়ের মুহম্মদ আযীযুল্লাহর পক্ষ থেকে এই আইনী নোটিশ পাঠানো হয়।
নোটিশে বলা হয়, পুলিশ কমিশনারের এ ধরণের বক্তব্য পবিত্র কোরআন শরীফ, হাদিছ শরীফ এবং সম্মানিত শরীয়ত উনার খিলাপ হয়েছে। যা মুসলামগণের দ্বীনি অনুভূতিতে চরমভাবে আঘাত হানার শামিল।

হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনাদের মর্যাদা সম্পর্কে নোটিশে বলা হয়, যেহেতু আল্লাহ তায়ালার কুদরতী সৃষ্টি ফেরেশতা। ফেরেশতাগণ আল্লাহ তায়ালার নৈকট্যপ্রাপ্ত। মানুষের মধ্যে বাধ্যতা ও অবাধ্যতা দুটিরই প্রবৃত্তি রয়েছে। কিন্তু ফেরেশতাদের মধ্যে অবাধ্যতার প্রবৃত্তি নেই। তাদেরকে সৃষ্টিগতভাবেই আল্লাহর অনুগত করা হয়েছে। ফেরেশতাগণের প্রতি ঈমান রাখা প্রত্যেক মুসলমানের জন্য আবশ্যক।

ফেরেশতাদের প্রতি চারটি বিশ্বাস রাখতে হবে। ১. ফেরেশতাগণ বিদ্যমান রয়েছে এই বিশ্বাস রাখা ও এর স্বীকৃতি দেওয়া; ২. আল্লাহর নিকট তাদের বড় সম্মান মর্যাদা ও নৈকট্য রয়েছে এই বিশ্বাস রাখা ও স্বীকৃতি দেওয়া; ৩. তাদের প্রতি ভালোবাসা পোষণ করা ও শত্রুতা না রাখাও ঈমানের অংশ। যারা ফেরেশতাদের সঙ্গে শত্রুতা রাখে তারা মূলত আল্লাহর সঙ্গেই শত্রুতা রাখে। আল্লাহ তাদের কাফের আখ্যা দিয়েছেন। আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘যে ব্যক্তি আল্লাহ, তার ফেরেশতা ও তার রাসুলগণ এবং জিবরাঈল ও মিকাঈলের শত্রু হয়, নিশ্চয় আল্লাহ সেই কাফেরের শত্রু।’ (সুরা বাকারা : ৯৮); ৪. ফেরেশতাগণ আল্লাহর হুকুমের অনুগত, তারা নিজের পক্ষ থেকে কিছু করার ক্ষমতা রাখে না এই বিশ্বাস রাখা। আল্লাহই সব কাজের নিয়ন্ত্রণকারী। ফেরেশতাগণ তার আদেশ বাস্তবায়নকারী মাত্র।

আল্লাহর সৃষ্টি ফেরেশতাদের ওপর ঈমান বা বিশ্বাস রাখা ঈমানের অবিচ্ছেদ্য অংশ। প্রত্যেক মুসলমানের কর্তব্য হলো ফেরেশতাগণের প্রতি ঈমান রাখা। আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কোরআনে ইরশাদ করেন, ‘রাসুল বিশ্বাস রাখেন ওই সব বিষয় সম্পর্কে যা তার পালন কর্তার পক্ষ থেকে তার কাছে অবতীর্ণ হয়েছে এবং মুসলমানরাও সবাই বিশ্বাস রাখে আল্লাহর প্রতি, তার ফেরেশতাদের প্রতি, তার গ্রন্থসমূহের প্রতি এবং তার পয়গাম্বরগণের প্রতি। (সুরা বাকারা : ২৮৫)

কেউ যদি ফেরেশতাদের প্রতি ঈমান না রাখে তাহলে সে ঈমানদার থাকে না। আল্লাহ তায়ালা বলেন, যে আল্লাহর ওপর, ফেরেশতাদের ওপর, তার কিতাবসমূহের ওপর এবং রাসুলগণের ওপর বিশ্বাস রাখবে না, সে পথভ্রষ্ট হয়ে বহুদূরে গিয়ে পড়বে। (সুরা নিসা : ১৩৬)।

উপরোক্ত বক্তব্য সমূহ দ্বারা সুস্পষ্ট যে, ফেরেশতাগণের উপর ঈমান আনতে হবে এবং উনাদের বিরুদ্ধাচরন কিংবা তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করা আল্লাহ পাক উনার অসন্তুষ্টির কারন হবে। আপনার মত একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তির পক্ষে এমন বক্তব্য কোনভাবেই আশা করা যায় না।

এমতাবস্থায় নোটিশ পাওয়ার ৩ (তিন দিনের) মধ্যে উক্ত মানহানিকর মন্তব্যসমূহ প্রত্যাহার করার আহ্বান জানানো হয়।

Facebook Comments Box