ইয়াওমুল ইসনাইন (সোমবার), ১৮ অক্টোবর ২০২১

পবিত্র রবীউল আউয়াল শরীফ মাসের সম্মানার্থে রাজধানীতে আনন্দ মিছিল

পবিত্র রবীউল আউয়াল শরীফ মাসের সম্মানার্থে রাজধানীতে আনন্দ মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক : পবিত্র রবীউল আউয়াল শরীফ মাস শুরু এবং পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লা্ল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নিকটবর্তী হওয়ায় উনাদেরকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছে “আন্তর্জাতিক সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উদযাপন কমিটি” সদস্যবৃন্ধ। মিছিলে হাজারও মানুষ অংশ নিয়েছেন।

শুক্রবার (৮ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনের পাশে ঐতিহ্যবাহী রাজারবাগ দরবার শরীফের সামনে থেকে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে আনন্দ মিছিল বের করে শাহজাহানপুর মোড়, মালিক মোড় হয়ে মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদরসায় এসে শেষ হয়।

আনন্দ মিছিলে সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে আন্তর্জাতিক সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উদযাপন কমিটির সদস্য ইনজামামুল বলেন, আমাদের দরবার শরীফে চলছে ৬৩ দিনব্যাপী বিশেষ মাহফিল। ইসলাম ধর্মের সর্বশেষ নবী ও রসূল হযরত মুহম্মদুর রসূলুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার জন্ম ও ওফাত শরীফের দিন অর্থ্যাৎ পবিত্র ১২ই রবিউল আউয়াল শরীফ উপলক্ষে এ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। আজকে ১৪৪৩ হিজরী সনের তৃতীয় মাস পবিত্র রবীউল আউয়াল শরীফের পহেলা তারিখ গণনা শুরু হয়।

ইনজামামুল বলেন, গত মাসের (৬ সেপ্টেম্বর) বাদ মাগরিব এ মাহফিলের উদ্বোধন করেন রাজারবাগ দরবার শরীফের শাহদামাদ হয়রত শফীউল উমাম আলাইহিস সালাম ও হযরত হাদীউল উমাম আলাইহিস সালাম।

৬৩ দিনব্যাপী এ মাহফিলের প্রথম ৩০ দিন প্রবিত্র কোরআন শরিফের ওপর প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখন দ্বিতীয় ৩০ দিন হবে ওয়াজ মাহফিল। সর্বশেষ তিন দিনে অনুষ্ঠিত হবে হামদে বারী তা’য়ালা, না’তে রসূল এবং সামা শরীফ (গজল) মাহফিল।

প্রতিযোগিতায় বিষয়ভিত্তিকভাবে শিশু-কিশোর, ছাত্র-যুবক ও বয়স্করা অংশগ্রহণ করবেন। মাহফিল শেষ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হবে। এছাড়া ওয়াজ মাহফিলে প্রতিদিন তিনজন আলোচক পূর্ব নির্ধারিত তিনটি নির্দিষ্ট বিষয়ের ওপর আলোচনা করবেন।

মিলাদ ও ক্বিয়ামের মধ্য দিয়ে প্রতিদিনের মাহফিলের শেষভাগে বিশেষ দোয়া-মোনাজাত এবং নছিহত পেশ করবেন রাজারবাগ শরীফের মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম। প্রতি রাতেই মাহফিল শেষে মাহফিলে অংশগ্রহণকারীগণের মধ্যে বরকতময় তাবারুক বিতরণ করা হচ্ছে।

তিনি আরোও বলেন, বিশেষ ভাবে আমরা যে মহান দিবসটির অপেক্ষমান রয়েছি। সেই দিনটি হলেন ১২ই রবিউল আউওয়াল শরীফ। ওই দিন সকালে কোটি কোটি কণ্ঠে পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠ করা হবে। সম্মিলিত ভাবে পবিত্র মিলাদ শরীফ পাঠ শেষে ঢাকা শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে মানুষদের মধ্যে ৬৩ হাজার প্যাকেট তাবারুক বিতরণ করা হবে।

Facebook Comments Box