ইয়াওমুস ছুলাছা (মঙ্গলবার), ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

তীব্র শৈত্যপ্রবাহ আসছে

পৌষের মাঝামাঝি হলেও গত কয়েকদিন রাজধানীতে তেমন শীত পড়ছে না। অনেককে এও বলতে শোনা গেছে, শীত কি আসার আগেই চলে গেল? কারণ, রাতে তো লেপ লাগছে না, কাঁথাতেই চলছে।

তবে এমন পরিবেশ হয়তো আর বেশি দিন থাকবে না। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, কয়েকদিনের মধ্যেই বাড়তে পারে শীত; এ মাসে বয়ে যেতে পারে তীব্র শৈত্যপ্রবাহও।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, রোববার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠেছে সীতাকুণ্ডে ২৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন শ্রীমঙ্গলে ৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন ১৪ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সোমবারও সারাদেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে অধিদপ্তর।

জানুয়ারি মাসের দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাস সম্পর্কে রোববার অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ জানান, দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে সামনে আসছে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ; সঙ্গে থাকবে হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশাও।

অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, জানুয়ারি মাসে মাসে দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে একটি মাঝারি (তাপমাত্রা ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) থেকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ (তাপমাত্রা ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস) বয়ে যেতে পারে।

দেশের অন্যত্র মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ (তাপমাত্রা ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) বয়ে যেতে পারে। তবে সার্বিকভাবে এ মাসের গড় তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি থাকতে পারে।

দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে এবং নদ-নদী অববাহিকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে বলে পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

ডিসেম্বর মাসের দ্বিতীয়ার্ধে দেশের ওপর দিয়ে দুটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। এসময় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয় শ্রীমঙ্গলে। দিনের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে ৭-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস নেমে যাওয়ায় সারাদেশে অনুভূত হয় বেশ শীত।

Facebook Comments Box