ছুলাছা (মঙ্গলবার), ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের অবশ্যই সুষ্ঠু তদন্ত হতে হবে: তুরস্ক

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগির টুকরো করা লাশ এসিডে পুড়িয়ে ফেলা হয় বলে তুরস্কের তরফ থেকে বলা হয়। এবার তার তদন্ত চাইলেন দেশটির উপরাষ্ট্রপতি ফুয়াত ওকতে। খবর রয়টার্সের।
আজ সোমবার সংবাদ সংস্থা ‘আনাদলু’কে বলেন, সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের অবশ্যই সুষ্ঠু তদন্ত হতে হবে।
এছাড়া তিনি বলেন, এটা এখন পরিস্কার যে তুরস্কের সৌদি কনস্যুলেটের ভিতরে জামাল খাশোগিকে হত্যাকাণ্ড ছিল পূর্ব পরিকল্পিত।
এখন প্রশ্ন হচ্ছে, খাশোগিকে হত্যার নির্দেশ কে দিলেন? তার লাশ এখন কোথায়? এবং খাশোগির লাশ এসিডে পুড়ে ফেলা হয়েছে বলে যে খবর এসেছে, সবকিছুর তদন্ত করতে হবে, বলেন তিনি।
উল্লেখ্য, তুর্কি বাগদত্তা হেতিস চেঙ্গিসের সঙ্গে বিয়ের প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র আনতে গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করার পর খুন হন ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার কলাম লেখক ও স্বেচ্ছা-নির্বাসিত সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি। শুরুতে অস্বীকার করলেও ১৯ অক্টোবর সৌদি জানায়,তুরস্কের ইস্তাম্বুল কসন্যুলেটে গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে খাশোগির মৃত্যু হয়। এর দুদিন পরই খাসোগিকে হত্যা করা হয়েছে বলেও স্বীকার করেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
 সৌদি আরবের দাবি,এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গোয়েন্দা সংস্থার উপ-প্রধান এবং যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দেহরক্ষিকে বরখাস্ত করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে মোট ১৮ জনকে।
তবে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে,খাশোগির খুনের পেছনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানই কলকাঠি নেড়েছেন।
Facebook Comments Box