জুমুআ (শুক্রবার), ১২ আগস্ট ২০২২

গুয়াতেমালায় যুব বন্দিশালায় দাঙ্গায় ৩ রক্ষী নিহত

গুয়াতেমালার দাঙ্গা পুলিশ একটি যুব বন্দিশালায় প্রবেশ করে দাঙ্গারত বন্দিদের কবল থেকে চার জিম্মি রক্ষীকে উদ্ধার করেছে।

যে চার রক্ষীকে উদ্ধার করা হয়েছে তাদের মধ্যে একজন মারা গেছেন এবং অপর দুজন গুরুতর আহত বলে জানিয়েছে বিবিসি।

রোববার ফ্যামিলি ভিজিটিং আওয়ারের পর দুই রক্ষীকে হত্যা করে ও আরেক জনকে গুলি করে বন্দিশালাটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় বন্দিরা।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রাজধানী গুয়াতেমালা সিটির ইতাপা ২ কেন্দ্রটি কুখ্যাত ১৮তম স্ট্রিট গ্যাং নিয়ন্ত্রণ করছে। পুরো মধ্য আমেরিকাজুড়ে এই অপরাধী গোষ্ঠীটির তৎপরতা রয়েছে।

বন্দিরা তাদের তোশকে আগুন ধরিয়ে বন্দিশালাটির ছাদে উঠে যায়। এদের মধ্যে কয়েকজন পালানোর চেষ্টা করে।

অন্যান্য কারাগারে বন্দি তাদের গোষ্ঠীর সদস্যদের ইতাপা ২ এ নিয়ে আসার দাবি করছে দাঙ্গাকারীরা। নিজেদের খাবার নিজেদের রান্না করার অধিকার দিতে অথবা বাইরে থেকে খাবার এনে দেওয়ার দাবিও জানিয়েছে তারা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ১৮তম স্ট্রিট গ্যাংয়ের সদস্যরা দাঙ্গায় অংশ না নিলে প্রতিদ্বন্দ্বী পাইসাস গ্যাংয়ের সদস্যদের হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেয়।

সোমবার বিকেলে দাঙ্গাকারীরা আত্মসমর্পণ করেছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

গুয়াতেমালার কারাগারগুলোর বেশিরভাগ বন্দি সহিংস স্ট্রিট গ্যাংগুলোর সদস্য। কারাগারের ভিতরে এসব গ্যাংয়ের মধ্যে প্রায়ই প্রাণঘাতী দাঙ্গা বেধে যায়।

মাত্র দুই সপ্তাহ আগে রাজধানীর কাছে রাষ্ট্র পরিচালিত একটি কিশোরী আশ্রয় কেন্দ্রে আগুন লেগে ৪০ জনেরও বেশি কিশোরী মারা যায়। আগুন ধরিয়ে দেওয়া একটি তোশক থেকেই কেন্দ্রটিতে আগুন ছড়িয়ে পড়েছিল বলে ধারণা করা হয়।

 

Facebook Comments Box