জুমুআ (শুক্রবার), ১২ আগস্ট ২০২২

কামভ-৩১ কিনতে রাশিয়ার সঙ্গে ভারতের চুক্তি

কামভ-৩১ কিনতে রাশিয়ার সঙ্গে ভারতের চুক্তি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গত বছর অক্টোবরে রাশিয়ার সঙ্গে একটি মাল্টি-বিলিয়ন ডলার চুক্তি সইয়ের পর ভারত এখন তার বিমানবাহী রণতরী ও ভবিষ্যত গ্রেগরিভিচ-ক্লাস যুদ্ধজাহাজে মোতায়েনের জন্য ১০টি কামভ-৩১ হেলিকপ্টার কিনতে যাচ্ছে। চলতি মাসের শেষ দিকে এ ব্যাপারে চুক্তি সই হতে পারে।

কা-২৭ (কা-২৮) ডিজাইনের উপর ভিত্তি করে কামভ কা-৩১ এয়ারবোর্ন আর্লি ওয়ার্নিং এন্ড কন্ট্রোল হেলিকপ্টারের উন্নয়ন শুরু হয় ১৯৮৭ সালে।

সরকারি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এএনআই জানায়, রাশিয়ার কাছ থেকে ১০টি কামভ কা-৩১ হেলিকপ্টার কিনতে প্রতিরক্ষামন্ত্রণালয় ৫০০ মিলিয়ন ডলারের প্রস্তাবটি গ্রহণ করতে যাচ্ছে।

২০০৩ সাল থেকে ভারতীয় নৌবাহিনীকে মোট ১৪টি কামভ-৩১ হেলিকপ্টার সরবরাহ করেছে রাশিয়া। এর মধ্যে প্রথম চারটি ভারতীয় নৌবাহিনীতে যুক্ত হয় ২০০৩ সালে। দ্বিতীয় ব্যাচ যুক্ত হয় ২০০৫ সালে।

বর্তমানে কা-৩১গুলোর স্টেশন ভারতের তলোয়ার ক্লাস ফ্রিগেটে। নতুন কা-৩১গুলো বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রমাদিত্যে মোতায়েন করা হবে। উড্ডয়নকালে এসব হেলিকপ্টারের রাডার এন্টেনা ভাজ করে ফিউজিলাজের মধ্যে ঢুকিয়ে রাখা যায়।

ফাজোটরন এনআইআইআর করপোরেশনের তৈরি কোরিও-এ রাডারের কারণে কা-৩১ একই সঙ্গে চারপাশে নজর রাখতে পারে। এর পাল্লা ২৫০ কিলোমিটার। ইলেক্ট্র-মেকানিক্যালি স্টিয়ার্ড এনটেনার মাধ্যমে এই রাডার আকাশ ও স্থল থেকে আসা যেকোন হুমকি চিহ্নিত করতে পারে। এটি হুমকির ভৌগলিক অবস্থান নিখুঁতভাবে পরিমাপ করতে পারে। ফলে এর সঙ্গে ডেটালিংক থাকা যুদ্ধজাহাজ ও জঙ্গিবিমান তাদের নিজস্ব সেন্সর কার্যকর না করেই এবং দূরে থেকে ওই হুমকি মোকাবেলা করতে পারে।

গত বছর অক্টোবরে শীর্ষ সম্মেলনে রাশিয়ার কাছ থেকে ৫.৪৩ বিলিয়ন ডলারের এস-৪০০ বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনে ভারত। ওই সময় মোট ৭ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি সই হয়। এর মধ্যে রাশিয়ার কাছ থেকে সাবমেরিন, স্বল্পপাল্লার বিমান প্রতিরক্ষা, ফ্রিগেট ও এসল্ট রাইফেল কেনার চুক্তিও রয়েছে।

Facebook Comments Box