ছুলাছা (মঙ্গলবার), ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

উন্নত ফিল্টার আনছে ট্রুকলার

উন্নত ফিল্টার আনছে ট্রুকলার

প্রযুক্তি ডেস্ক: ট্রুকলারের নতুন আইওএস সংস্করণটি আগের তুলনায় হালকা ও বেশি কার্যকর। ফলে, ‘আইফোন ৬’-এর মতো পুরোনো ডিভাইসে তুলনামূলক দ্রুত কাজ করে এটি।

ট্রুকলার এমন একটি জনপ্রিয় ‘অ্যান্টি-স্প্যাম’ অ্যাপ, যা অপছন্দের ফোন কল ও বার্তা সম্পর্কে সতর্ক করে ব্যবহারকারীকে। এই সপ্তাহে অ্যাপটির আইওএস সংস্করণে বিশাল আপডেটের ঘোষণা দিয়েছে কোম্পানিটি, যেখানে নতুন করে সাজানো অ্যাপটিতে যোগ হয়েছে উন্নত ফিল্টার এবং বেশ কিছু নতুন ফিচার।

ট্রুকলারের মাধ্যমে স্প্যাম অথবা জালিয়াতি সংশ্লিষ্ট নাম্বার থেকে গুরুত্বপূর্ণ যোগাযোগকে আলাদা করতে পারেন ব্যবহারকারী।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ৯টু৫ম্যাকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিশেষ একটি ‘আইওএস এপিআই’ ব্যবহার করে অ্যাপটি, যার মাধ্যমে ‘কল স্ক্রিন’ থেকে সরাসরি ‘স্প্যাম কল’ শনাক্ত করতে পারেন ব্যবহারকারী।

স্প্যাম হওয়ার সম্ভাবনা থাকা বিভিন্ন ফোন নাম্বারের একটি ডেটাবেজ রয়েছে ট্রুকলারের কাছে, যা নিয়মিত আপডেট করে অ্যাপটি।

নতুন কী আছে ট্রুকলারে?

কোম্পানির তথ্য অনুযায়ী, ট্রুকলারের নতুন আইওএস সংস্করণটি আগের তুলনায় হালকা ও বেশি কার্যকর। ফলে, ‘আইফোন ৬’-এর মতো পুরোনো ডিভাইসে তুলনামূলক দ্রুত কাজ করে এটি।

ইনস্টলের পর প্রথমবার অ্যাপটি সেটআপ করার বিষয়টি আগের তুলনায় সহজ হয়েছে ও প্ল্যাটফর্মটিকে তুলনামূলক নিখুঁত করে তুলতে এর ফিল্টার উন্নত করেছে কোম্পানিটি।

নতুন ফিচারের মধ্যে রয়েছে, অফলাইনেও ‘এসএমএস’ ফিল্টারের পূর্ণ কার্যক্ষমতা। ট্রু কলার নিশ্চিত করেছে, ‘আইওএস ১৬’-তে থাকা ‘মেসেজেস’ অ্যাপের নতুন শ্রেণির ফিল্টারের সঙ্গে মিল রেখে কাজ করছে তারা।

অ্যাপটির আরেকটি নতুন ফিচার হচ্ছে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ‘শীর্ষ স্প্যামারদের’ ব্লক করার সক্ষমতা। এ ছাড়া, স্প্যাম হিসেবে বিবেচিত বিভিন্ন নাম্বারের পরিসংখ্যান দেখার সুবিধাও যোগ হয়েছে এতে।

স্প্যাম হিসেবে বিবেচিত নাম্বার সম্পর্কে বাড়তি তথ্য পেতে এখন থেকে একটি ‘কমেন্ট সেকশনে’ প্রবেশাধিকার পাবেন ব্যবহারকারী। এই অ্যাপডেটে আরও আছে নতুন একটি ‘উইজেট’, যার মাধ্যমে ট্রুকলার ডেটাবেজে দ্রুত সার্চের সুবিধা পাবেন ব্যবহারকারী।

“কল অ্যালার্টস’, ‘কল রিজন’ ও একটি সুবিধাজনক ‘সার্চ এক্সটেনশনের’ মতো শক্তিশালী ফিচার আনতে অ্যাপলের প্ল্যাটফর্মে উদ্ভাবন চালিয়ে যাচ্ছি আমরা।” –বলেছেন ট্রুকলারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও অ্যালেন মামেডি।

“এই আপডেটের জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেছেন আইওএস ব্যবহারকারীরা। তাই এখন স্প্যাম ও জালিয়াতি কার্যক্রম শনাক্তকারী সেরা ফিচার দিতে পারছি আমরা, যার মাধ্যমে বিরক্তিকর নাম্বার থেকে নিজের পছন্দের যোগাযোগকে আলাদা করতে পারবেন তারা।”

অ্যাপস্টোরে বিনামূল্যেই মিলছে ট্রুকলার অ্যাপটি। তবে, এর কয়েকটি ফিচার চালানোর জন্য ‘প্রিমিয়াম’ সেবা প্রয়োজন, যেটি চালাতে মাসিক চার দশমিক ৯৯ ডলার অথবা বার্ষিক ২৯ দশমিক ৯৯ ডলার গুণতে হবে ব্যবহারকারীকে।

Facebook Comments Box