ইয়াওমুস সাবত (শনিবার), ১৭ এপ্রিল ২০২১

আঙুলের ছাপে পরিচয় নিশ্চিতের প্রযুক্তি আনল র‌্যাব

আঙুলের ছাপে পরিচয় নিশ্চিতের প্রযুক্তি আনল র‌্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক: অপরাধী, সন্দেহভাজন কিংবা বেওয়ারিশ মরদেহের আঙুলের ছাপ স্ক্যান করে পরিচয় নিশ্চিত করার প্রযুক্তি এনেছে এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

রোববার সচিবালয়ে অনলাইন আইডেনটিফিকেশন অ্যান্ড ভেরিফিকেশন সিস্টেম (ওআইভিএস) প্রযুক্তির উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

এই প্রযুক্তির মাধ্যমে একটি ডিভাইসে আঙুলের ছাপ দেয়া মাত্র অনলাইনে সংযুক্ত সেই ডিভাইসের স্ক্রিনে পরিচয় নিশ্চিতে ৬ ধরনের তথ্যের অপশন আসবে। সেগুলোতে ক্লিক করে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে। সহজেই চিহ্নিত করা যাবে যেকোনো অপরাধীকে। র‌্যাবের টহল দলের কাছে এই প্রযুক্তি থাকবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এই প্রযুক্তির মাধ্যমে যে কাউকে শনাক্ত করা যাবে। এতে সহজেই পরিচয় নিশ্চিত করা যাবে। শুধু অপরাধী নয়, সাধারণের পরিচয়ও এর মাধ্যমে নিশ্চিত করা যাবে।’

জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন বলেন, ‘অপরাধীরা তথ্য গোপন করে। এটি ফরেনসিক পরীক্ষার সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ফলে সব ধরনের তথ্য সহজেই হাতের নাগালে পাওয়া যাবে। অপরাধীরা অপরাধ করতে পারবে; তবে লুকিয়ে রাখতে পারবে না। এর মাধ্যমে বেওয়ারিশ মরদেহের পরিচয় সহজেই চিহ্নিত করা সম্ভব হবে। ওআরভিএস হচ্ছে তথ্যপ্রযুক্তির সর্বোত্তম আইনসঙ্গত ব্যবহার।’
ওআইভিএসের সার্ভার সাপোর্ট করলে এটি পুলিশ বাহিনীর জন্য ব্যবহার করতে চান বলে অনুষ্ঠানে জানান পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ।

র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘ওআইভিএস প্রযুক্তির মাধ্যমে পরিচয় নিশ্চিতের পাশাপাশি আইন-আদালতের কাজের প্রক্রিয়া সহজ হবে। এটি অপরাধ দমনে সফলভাবে ভূমিকা রাখবে।’

ওআইভিএস’র কাজের প্রক্রিয়া বর্ণনা করে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশনস) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সরোয়ার বলেন, ‘এই ডিভাইসে কারো আঙ্গুলের ছাপ দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা বিভিন্ন সার্ভারে কানেক্ট হয়ে যাবে। এখানে এনআইডি, পাসপোর্ট, জেল (কখনো জেল খেটেছেন কি-না), অপরাধ সংক্রান্ত তথ্য, ড্রাইভিং লাইসেন্স তথ্য ছাড়াও রোহিঙ্গা কি-না তাও জানা যাবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘দেশের র‌্যাবের সব টহল দলের সঙ্গে এ ডিভাইস দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। এই প্রযুক্তির সফটওয়্যার বাংলাদেশে তৈরি তবে শুধুমাত্র ডিভিইসটি দেশের বাইরে থেকে আনা হয়েছে। খরচও সাশ্রয়ী।’

Facebook Comments